Wednesday, October 17, 2018

ঘরে বসে লাখপতি হোন।

অনলাইন ভিত্তিক অর্থ উপার্জনের ১০০% নিশ্চয়তা দিয়ে ডি.আই.টি-তে বিভিন্ন কোর্স-এ ভর্তি চলিতেছে..!

মোবাইলঃ-01763-023348
sonardesh24.com

আ.লীগের রাজনীতিতে আসছেন জয়!

সোনারদেশ রিপোর্টঃ

sonardesh24.comআওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরে দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে শুরু হয়েছে নানা হিসাব নিকাশ। পুরনো কমিটি পুনঃগঠন করা হবে নাকি নতুন মুখ আসবে, নতুন মুখ আসলে কারা আসতে পারে বা কাদের রাখা হতে পারে, পুরনোদের জায়গাটা ‘পক্ক’ না ‘অপক্ক’- এমন হিসাবের মধ্যেই শোনা যাচ্ছে নতুন আওয়াজ। ‘নতুন মুখ’ হিসেবে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে পদ পেতে যাচ্ছেন দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়।

বর্তমান সভাপতি শেখ হাসিনা দল থেকে অবসর চাওয়ার পর থেকেই বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র সজীব ওয়াজেদ জয়কে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে যুক্ত করার ব্যাপরটিও নতুন করে ভাবতে হচ্ছে দলীয় নেতা-কর্মীদের। বর্তমান সভাপতি শেখ হাসিনা সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে দলীয় সভাপতির পদ থেকে অবসরক গ্রহণের ইচ্ছা প্রকাশ করে বলেছেন, “সভাপতি হিসেবে আমার তো ৩৫ বছর হয়ে গেছে। আমাকে যদি রিটায়ার করার সুযোগ দেয়া হয় তাহলে আমি সব থেকে বেশি খুশি হব। আমি থাকব। দল ছেড়ে তো আমি যাচ্ছি না। যদি নতুন নেতা নির্বাচিত করা হয়, তাহলে আমিই সব থেকে বেশি আনন্দিত হব।”

দলীয় নেতাদের অধিকাংশই মনে করেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার জন্য প্রযুক্তিখাতে ব্যাপক উন্নয়ন ও অগ্রসরে অবদানের জন্য সজীব ওয়াজেদ জয় নিজেই আওয়ামী লীগের কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে আসার যোগ্যতা রাখেন। সেই সাথে জাতিসংঘের “ডেভেলপমেন্ট অ্যাওয়ার্ড ফর আইসিটি-২০১৬” অর্জন এবং ২০০৭ সালে “ইয়ং গ্লোবাল লিডার” হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার বিষয়টিও জয়ের ক্লিন ইমেজকে আরও উচ্চমাত্রায় নিয়ে গেছে। তাছাড়া তরুণ প্রজন্মের কাছে তার গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে জোরালো ভাবেই। 

দলীয় নেতারা ব্রেকিংনিউজকে জানান, দলের “ভাল-মন্দের” বিষয়টি সব সময় খেয়াল রাখেন সজীব ওয়াজেদ জয়। সেই সাথে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি, সাম্প্রদায়িকতা, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জাতীয়তাবোধ জাগ্রত করতে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেন তিনি।

জয় রাজনীতিতে খুব একটা সক্রিয় না থাকলেও মহাজোট সরকারের আমলে বিভিন্ন সময়ে সভা, সেমিনার বা সাংবাদিক সম্মেলনে তার উপস্থিতি ‘অরাজনৈতিক আচরণ’ নয় বলে মনে করেন দলীয় নেতারা। তারা জানান, জয়ের প্রবেশ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে এক ভিন্ন মাত্র যোগ করবে। 

সজীব ওয়াজেদ জয়ের রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার বিষয়টি এতদিন গুঞ্জন থাকলেও অনুষ্ঠেয় কাউন্সিলকে কেন্দ্র করে এখন তা আরও স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। এবারই প্রথমবারের মতো আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে দলের কাউন্সিলর হয়েছেন জয়। 

দলের কাউন্সিলর হওয়ার আগে ২০১৩ সালের ২৩ ফেব্রয়ারি মায়ের নির্বাচনী এলাকা পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের ৬৭ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে জয়কে ১নং সদস্য নির্বাচিত করা হয়েছিল। সে কমিটি পূর্ণাঙ্গ করে ২০১৫ সালের ১০ জানুয়ারি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে ঘোষণা করা হয়।

এর আগে ২০১০ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি সজীব ওয়াজেদ জয়কে পিতৃভূমি রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দলের  প্রাথমিক সদস্যপদ দেয়া হয়। 

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ ব্রেকিংনিউজকে বলেন, “রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের কাছ থেকে কাউন্সিলদের যে তালিকা পাঠানো হয়েছে তাতে সজীব ওয়াজেদ জয়ের নাম আছে। আগামী কাউন্সিলে রংপুরের কাউন্সিলর হিসেবেই তিনি (জয়) সম্মেলনে যোগ দেবেন।”

Check Also

sonardesh24.com

নওগাঁয় দুটি ব্রীজের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ সোনারদেশ২৪: নওগাঁর মহাদেবপুরে স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৭ বছর পর অবশেষে আত্রাই নদীর শিবগঞ্জঘাট ও ...

সম্পাদকঃ জিয়া্উল হক, নির্বাহী সম্পাদকঃ নওশাদ আহমেদঠিকানাঃ কমিউনিটি হাসপাতাল (৫ম তলা) মুজিব সড়ক, সিরাজগঞ্জ।
ফোনঃ ০১৬৮৩-৫৭৭৯৪৩, ০১৭১৬-০৭৬৪৪৪ ইমেইলঃ sonardesh24.corr@gmail.com, sonardesh24@yahoo.com