Thursday, November 15, 2018

ঘরে বসে লাখপতি হোন।

অনলাইন ভিত্তিক অর্থ উপার্জনের ১০০% নিশ্চয়তা দিয়ে ডি.আই.টি-তে বিভিন্ন কোর্স-এ ভর্তি চলিতেছে..!

মোবাইলঃ-01763-023348
sonardesh24.com

জলবায়ু পরিবর্তনে ৬৪৩টি বিদ্যালয়ে ‘আলোর মিছিল’

সোনারদেশ২৪ রিপোর্টঃ

sonardesh24.comজলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় শিক্ষার্থীদের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পরিচালনাকারী স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আলোর মিছিল’-এর সবুজায়ন আন্দোলন এবার রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার ১৬৫ টি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শুরু হয়েছে। এ নিয়ে ৬৪৩টি বিদ্যালয়ে আলোর মিছিলের সবুজায়ন আন্দোলন শুরু হলো।

এ উপলক্ষ্যে গত শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় চারঘাট উপজেলা অডিটোরিয়ামে আলোর মিছিলের এই সবুজায়ন আন্দোলনের গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তার উপর সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনার উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আশরাফুল ইসলাম। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আলোর মিছিলের প্রতিষ্ঠাতা ও সংগঠনের প্রধান সমন্বয়ক মো. জুবায়ের আল মাহমুদ রাসেল। অনুষ্ঠানে অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারি উপজেলা মাধ্যমিক কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ, একাডেমিক সুপার ভাইজার সিরাজুল হক সরকার এবং কথা সাহিত্যিক ও সাংবাদিক আবুল কালাম মুহম্মদ আজাদ।

মূল প্রবন্ধে আলোর মিছিলের প্রতিষ্ঠাতা জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় শিক্ষার্থীদের নিয়ে বছরে এক দিন বৃক্ষরোপণের প্রয়োজনীয়তার উপর আলোকপাত করেন। পরে তিনি শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকা সঞ্চয়ের জন্য প্রতিটি বিদ্যালয়ে সিএফসি ফাইটার বক্স বিতরণ করেন। এই ফাইটার বক্সে একজন শিক্ষার্থী বৃক্ষরোপণের জন্য প্রতি মাসে দুই টাকা করে জমাবে। এরপর বছর শেষে সেই টাকা দিয়ে বৃক্ষরোপণ করবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত উপজেলার ১৭৮টি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগণ জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকায় বৃক্ষরোপণের এই ধারণাকে সাদরে গ্রহণ করেন। শিক্ষকরা এসময় আসছে বর্ষা মৌসুমে নিজ নিজ বিদ্যালয়ে অন্তত গড়ে ৫ শতাধিক তথা ৮০ হাজার গাছ রোপণের শপথ নেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিক্ষার্থীদের নিয়ে বৃক্ষরোপণের এই ধারণাকে তার উপজেলায় বাস্তবায়নের জন্য শিক্ষকদের নির্দেশনা দেন। তিনি বলেন, শিক্ষকরা মানুষ গড়ার কারিগর, তারা যদি শিক্ষার্থীদের নিয়ে বছরে একটা দিন বৃক্ষরোপণ করেন তাহলে দেশটা যেমন সবুজে ভরে যাবে, তেমনি শিক্ষার্থীদের মনে ছোট বেলাতেই দেশপ্রেম জাগ্রত হবে।

অনুষ্ঠানে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে তার নিজ গ্রাম কীভাবে ধীরে ধীরে ধ্বংসের দিকে চলে যাচ্ছে তার বর্ণনা দেন।

কথা সাহিত্যিক আবুল কালাম মুহম্মদ আজাদ তার বক্তব্যে বলেন, সব কিছু সিলেবাসে লেখা থাকে না। শিক্ষার্থীদের নিয়ে বৃক্ষরোপণের এই বিষয়টিও লেখা নেই। কিন্তু আগামীর বিশ্বকে বাঁচাতে আলোর মিছিলের বৃক্ষরোপণের এই থিম বাস্তবায়ন না করেও উপায় নেই। শিক্ষার্থীদের নিয়ে বছরে একটা দিন বৃক্ষরোপণ করা প্রতিটি শিক্ষকের নৈতিক দায়িত্ব বলেও মনে করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আরো জানানো হয়, ওজন স্তরই সূর্যের তাপমাত্রাকে কমিয়ে পৃথিবীকে বাসযোগ্য করেছে। কিন্তু পৃথিবীতে গাছপালা কমে যাওয়া, কল-কারখানা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন কারণে আজ ওজন স্তর হুমকির মুখে পড়েছে। এ থেকে বাঁচতে হলে আলোর মিছিলের বৃক্ষরোপণের এই আন্দোলন দেশের প্রতিটি বিদ্যাপিঠেই চালু করা দরকার।

উল্লেখ্য, ২০১০ সাল থেকে বিনা পয়সায় বই বিলিয়ে রাজশাহী ও নাটোরের ৪১টি বিদ্যালয়ে বইপড়ার আন্দোলনের মধ্যদিয়ে স্বেচ্ছাসেবী কাজ শুরু করে আলোর মিছিল। এর প্রতিষ্ঠাতা জুবায়ের আল মাহমুদ এরপর ২০১৫ সালে ওই ৪১টি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে বইপড়ার আন্দোলনের পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বৃক্ষরোপন আন্দোলন শুরু করেন। শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে ‘আলোর মিছিল’ গত ২ বছরে দেশব্যাপি প্রায় ৪৭ হাজার বৃক্ষরোপণ করেছে।

সবশেষ গত বছর ওই ৪১টি বিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন জেলা উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিয়ে প্রায় ৩০ হাজার গাছ রোপণ করা হয়েছে।

আলোর মিছিল এ বছর দেশব্যাপ ৫ লাখ গাছ রোপণের লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এর অংশ হিসাবে সংগঠনটি বিভিন্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের টিফিনের টাকা সঞ্চয়ের জন্য একটি করে সিএফসি ফাইটার বক্স প্রদান করছে।

সিএফসি ফাইটার বক্স কি: এটি একটি বাক্সরূপ, যেখানে প্রত্যেক শিক্ষার্থী মাসে দুই টাকা করে জমাবে। বছর শেষে ওই টাকা দিয়ে বৃক্ষরোপণ করবে। জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য দায়ী সিএফসি বা ক্লুরো ফ্লোরো কার্বন গ্যাসের বিরুদ্ধে বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে অক্সিজেন উৎপাদন করে এই বক্স ফাইট করবে।

সিএফসি ফাইটার বক্স ব্যবহারের নিয়মাবলী: প্রতিমাসে একদিন সিএফসি ফাইটার বক্স বের করতে হবে; এই বক্সে কোন শিক্ষার্থী প্রতিমাসে ২ টাকার অধিক সঞ্চয় করতে পারবে না; শিক্ষার্থীদের সঙ্গে শিক্ষকগণও টাকা সঞ্চয় করতে পারবেন; সিএফসি ফাইটার বক্স বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককের তত্ত্বাবধানে থাকবে; জোর করে নয়, বরং জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বৃক্ষরোপণের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে অবহিত করে শিক্ষার্থীদের টাকা সঞ্চয়ে উদ্বুদ্ধ করতে হবে; বছর শেষে সিএফসি ফাইটার বক্সে সঞ্চিত টাকা দিয়ে প্রধান শিক্ষক মহোদয় শিক্ষার্থীদের হাতে গাছের চারা তুলে দেবেন এবং শিক্ষার্থীরা ওই চারা নিজেদের বাড়িতে গিয়ে নিজেদের জায়গায় রোপণ করবে।

লক্ষ ও উদ্দেশ্য: জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় পৃথিবীতে অক্সিজেনের মাত্রা বাড়ানো; শিক্ষার্থীদের গাছ রোপণ তথা দেশের কাজে অর্থ সঞ্চয়ের মানুসিকতা তৈরি করা; আলোর মিছিল মনে করে টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে বৃক্ষরোপণের এই অভ্যাস শিক্ষার্থীদের ছোট্ট মনে গেঁথে দিতে পারলে ছোটবেলাতেই তাদের মনে দেশপ্রেম জন্ম নিবে; শিক্ষার্থীদের নিয়ে বছরে একটা দিন বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে আলোর মিছিল দেশের মোট সমভূমির ২৫ শতাংশ বন তৈরিতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে; শিক্ষার্থীদের নিয়ে বছরে একদিন জাতীয়ভাবে বৃক্ষরোপণ করা; আলোর মিছিলের চাওয়া একটাই- তা হলো সমস্ত পৃথিবীর শিক্ষার্থীরা বছরে একদিন নিজেদের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে বৃক্ষরোপণ করবে।

আলোর মিছিল এভাবেই বৈশ্বিক উষ্ণতা থেকে পৃথিবীকে রক্ষা করতে চায়।

Check Also

sonardesh24.com

আমাদের নির্বাচনে যাওয়ার দরকার নেই: খালেদা জিয়া

সোনারদেশ২৪: ডেস্কঃ তফসিল ঘোষণার পরও সরকারের দমননীতির কঠোর সমালোচনা করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ...

সম্পাদকঃ জিয়া্উল হক, নির্বাহী সম্পাদকঃ নওশাদ আহমেদঠিকানাঃ কমিউনিটি হাসপাতাল (৫ম তলা) মুজিব সড়ক, সিরাজগঞ্জ।
ফোনঃ ০১৬৮৩-৫৭৭৯৪৩, ০১৭১৬-০৭৬৪৪৪ ইমেইলঃ sonardesh24.corr@gmail.com, sonardesh24@yahoo.com